এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > PRT স্কেল সহ একগুচ্ছ দাবিতে বিধানসভা অভিযান, গ্রেপ্তার হাজারের বেশি শিক্ষক

PRT স্কেল সহ একগুচ্ছ দাবিতে বিধানসভা অভিযান, গ্রেপ্তার হাজারের বেশি শিক্ষক

আজ বিজেপি টিচার্স সেলের পক্ষ থেকে কলকাতায় বিজেপির রাজ্য সদর দপ্তর থেকে মিছিল করে বিধানসভা অভিযান করা হয়। মিছিলের নেতৃত্ব দেন বিজেপি টিচার্স সেলের রাজ্য অবজারভার তথা বাঁকুড়ার সাংসদ ডঃ সুভাষ সরকার এবং বিজেপি টিচার্স সেলের রাজ্য কনভেনার দিপল বিশ্বাস। পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত জেলা থেকে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষক-শিক্ষিকা আজকের বিধানসভা অভিযানে উপস্থিত ছিলেন।

আজকের এই বিধানসভা অভিযানের মূল দাবিগুলি ছিল প্রাথমিক শিক্ষকদের উপর পুলিশের জলকামান, লাঠিপেটা ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ, প্রাথমিক শিক্ষকদের PRT স্কেল, পাস গ্রাজুয়েট শিক্ষকদের TGT স্কেল, বকেয়া ডিএ সহ কেন্দ্রীয় হারে পে-কমিশন, পার্শ্ব শিক্ষক, শিক্ষাবন্ধু, SSK/MSK, Vocational Teachers, Contractual শিক্ষকদের কেন্দ্রের প্রস্তাবিত হারে বেতন, ২ লক্ষ শূন্যপদে স্বচ্ছ ভাবে শিক্ষক নিয়োগ করে বিদ্যালয়ের যথার্থ পরিবেশ ফিরিয়ে আনা।

আজকের এই বিধানসভা অভিযানে উপস্থিত থাকার কথা ছিল মেদিনীপুরের সাংসদ তথা বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। জরুরি একটি মিটিংয়ে তিনি আটকে পড়ায় উপস্থিত থাকতে পারেন নি। তবে তিনি এই অভিযানের স্বপক্ষে নিজের সমর্থন জানিয়ে মোবাইলে বক্তব্য রাখেন। এরপরে শিক্ষকদের মহামিছিল বিধানসভার দিকে এগোলেই কলকাতা পুলিশ সেই মিছিলকে বাধা দেয়। ব্যারিকেড ভেঙে মিছিল এগোতে গেলে, পুলিশের সঙ্গে শিক্ষকদের ব্যাপক ধস্তাধস্তি হয়।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

এরপর পুলিশ বিজেপি টিচার্স সেলের রাজ্য কনভেনার দিপল বিশ্বাস সহ প্রায় হাজার খানেক শিক্ষকদের গ্রেপ্তার করে। পরে অবশ্য তাঁদের নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়া হয়। বিজেপি টিচার্স সেলের রাজ্য অবজারভার তথা সাংসদ সুভাষ সরকার বলেন, বর্তমান তৃণমূল সরকার রাজ্যে ক্ষমতায় থাকার নৈতিকতা হারিয়েছে। তাদের বিন্দু মাত্র লজ্জা থাকলে তারা সরকার ভেঙে দিয়ে বিধানসভা ভোট করাতো। বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় এলে প্রাথমিক শিক্ষকদের PRT স্কেল সহ শিক্ষকদের অন্যান্য সমস্ত ন্যায্য দাবি মেনে নেওয়া হবে।

বিজেপি টিচার্স সেলের রাজ্য কনভেনার দিপল বিশ্বাস জানান, শিক্ষকরা পোস্টাল ব্যালটে বিজেপিকে ভোট দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা বর্তমান তৃণমূল সরকারকে কেউ চান না। আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বলে দিয়েছেন বিজেপি রাজ্যে ক্ষমতায় এলে শিক্ষকদের সমস্ত দাবি দাওয়া মন্ত্রীসভার প্রথম ক্যাবিনেট বৈঠকেই গৃহীত হবে। তাই, যতদিন না আমাদের ন্যায্য দাবি বর্তমান রাজ্য সরকার মেনে নিচ্ছে, আমাদের আন্দোলন চলতেই থাকবে।

অন্যদিকে, বিজেপি টিচার্স সেলের প্রাথমিক শাখার রাজ্য কো-ইনচার্জ সব্যসাচী ঘোষ বলেন, ভারতীয় জনতা পার্টির শিক্ষক সংগঠন বিজেপি টিচার্স সেল রাজ্য কনভেনার দিপল বিশ্বাসের নেতৃত্বে PRT স্কেলের দাবিতে যেভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন তাতে পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত প্রাথমিক শিক্ষক বিজেপি টিচার্স সেলের ছাতার তলায় আসতে চাইছেন। আমাদের দাবি না মানা হলে আমরা আগামী দিনে লক্ষাধিক প্রাথমিক শিক্ষক নিয়ে নবান্ন অভিযান করব। শিক্ষকদের ন্যায্য দাবি ও পাওনা-গণ্ডা এইভাবে দিনের পর দিন আটকে রেখে রাজ্য সরকার এইভাবে দিনের পর দিন বঞ্চনা চালিয়ে যেতে পারে না।

Top
error: Content is protected !!