এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > জনগনের জন্য বড় ‘তোফা’ বিজেপি সরকারের, খুব শীঘ্রই করতে চলেছে এই বড় কাজটি

জনগনের জন্য বড় ‘তোফা’ বিজেপি সরকারের, খুব শীঘ্রই করতে চলেছে এই বড় কাজটি

বর্তমান বিশ্বে বোধহয় সবথেকে কঠিন অসুখের নাম ক্যান্সার। সাধারণ মধ্যবিত্ত বা নিম্নবিত্ত বাড়িতে ক্যান্সার ধরা পড়লে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার জোগাড় হয়। ক্যান্সার আক্রান্ত ব্যক্তি সঠিক চিকিৎসা কিভাবে পাবেন সেই ভয়েই আধমরা হয়ে যান, অন্যদিকে ক্যান্সারের ব্যয় বহুল চিকিৎসার ভার কিভাবে বহন করা হবে সেই চিন্তায় ঘুম উড়ে যায় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের।

আর এবার জনগনের সেই অসুবিধার কথা মাথায় রেখে বড়সড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে আসামের বিজেপি পরিচালিত রাজ্য সরকার। ‘জনতা ভবনে’ (আসাম সচিবালয়) এক সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডঃ হিমন্ত বিশ্বশর্মা জানান, গত ৫ ই জুলাই আসাম ক্যান্সার কেয়ার ফাউন্ডেশন (ACCF) রাজ্যে প্রথম দফায় ৭ টি ক্যান্সার হাসপাতাল তৈরির জন্য ভারতীয় বহুজাতিক সংস্থা লারসেন অ্যান্ড টুব্রোর সঙ্গে এক চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

ফেসবুকের কিছু টেকনিক্যাল প্রবলেমের জন্য সব আপডেট আপনাদের কাছে সবসময় পৌঁচ্ছাছে না। তাই আমাদের সমস্ত খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে যোগদিন আমাদের হোয়াটস্যাপ বা টেলিগ্রাম গ্রূপে।

১. আমাদের Telegram গ্রূপ – ক্লিক করুন
২. আমাদের WhatsApp গ্রূপ – ক্লিক করুন
৩. আমাদের Facebook গ্রূপ – ক্লিক করুন
৪. আমাদের Twitter গ্রূপ – ক্লিক করুন
৫. আমাদের YouTube চ্যানেল – ক্লিক করুন

আসামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডঃ হিমন্ত বিশ্বশর্মা আরও জানান, এই নির্মাণ কাজে মোট ৭৩৬ কোটি টাকা খরচ হবে। ২০১৮ সালেই আসাম সরকার দ্বারা রাজ্যে ত্রি-স্তরীয় ক্যান্সার পরিষেবা দেবার জন্য টাটা ট্রাস্টের সহযোগিতায় অলাভজনক সংস্থা ACCF-এর গঠন করা হয়েছিল। আর এবার, রাজ্য সরকার আরও একধাপ এগিয়ে সাতটি ক্যান্সার হাসপাতালই রাজ্যে খুলতে চলেছে।

ডঃ হিমন্ত বিশ্বশর্মা আরও জানিয়েছেন, প্রথমধাপে ডিব্রুগড়, তেজপুর, লক্ষ্মীপুর, বারপেটা, দরং ও জোরহাটে নতুন ক্যান্সার হাসপাতাল নির্মাণ হবে। এছাড়াও গুয়াহাটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সঙ্গে যুক্ত গুয়াহাটি ক্যান্সার হাসপাতালটিকে আপগ্রেড করা হবে। এই সকল নির্মাণ কাজই ২০১৯ সালের মধ্যে শুরু হয়ে যাবে। এছাড়া, দ্বিতীয় দফায় আসামে আরও ৩ টি ক্যান্সার হাসপাতাল তৈরী করা হবে বলেও তিনি জানান।

Top
error: Content is protected !!