এখন পড়ছেন
হোম > Posts tagged "minister"

BIG BREAKING -এবার তৃণমূলের এই হেভিওয়েট নেতা মন্ত্রীকে সারদা কাণ্ডে তলব, জেনে নিন

আজ তৃণমূল মহাসচিবকে তলব করেছিল সিবিআই এমনটাই জানা গেছে। আজ সেই মতো তাঁর আজ সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দেবার কথা ছিল। এদিন দুপুর দুটোয় সিজিও কমপ্লেক্সে যাওয়ার কথা ছিল পার্থবাবুর। সেইসময় মতোই তিনি হাজির হন সেখানে।   সূত্রের খবর, সারদার সঙ্গে তৃণমূলের মুখপত্র 'জাগো বাংলা'র আর্থিক লেনদেন নিয়েই পার্থবাবুকে জেরা করতে পারেন সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা।

বড়সড় ধাক্কা দিয়ে এবার গেরুয়া শিবিরে হানা দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী

এবারের লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 42 এ 42 এর স্লোগান দিয়েছিলেন। কিন্তু বাস্তবে তার সেই শ্লোগান পরিপূর্ণতা পায়নি। উল্টে 2014 সালে বাংলা থেকে তৃণমূল 34 টা আসন পেলেও এবার তাদের দখলে এসেছে মোটে 22 টি আসন। অন্যদিকে বিজেপি 2 থেকে বড়িয়ে তাদের আসন সংখ্যা 18 করে নিয়েছে। আর তার পর থেকেই

জেলা পরিষদের সদস্যদের সতর্ক করলেন, কারণ জেনে নিন

গত 2011 সালে রাজ্যে বাম সরকারকে বিদায় জানিয়ে সাধারন মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল কংগ্রেস সরকারকে প্রতিষ্ঠা করেছিল। আর বাম সরকারকে বিদায় জানানো পেছনে মূল কারণ ছিল দুর্নীতি। তৃণমূল সরকারের আমলে যাতে সেই দুর্নীতি না হয়, তার জন্যই মানুষ সেই মা মাটি মানুষের সরকারকে প্রতিষ্ঠা করেছিল বলে দাবি রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। কিন্তু

বাংলার পুজো দখলে বিজেপিকে ট্রেনিং নেওয়ার পরামর্শ তৃণমূলের মন্ত্রীর

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির বাংলায় প্রভাব বাড়ার সাথে সাথেই ক্রীড়া ময়দান, টলি জগতে প্রভাব বাড়াতে শুরু করে গেরুয়া শিবির। যার ফলে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে গেরুয়া শিবিরের দাপাদাপিতে কিছুটা হলেও আতঙ্কিত হয়ে পড়ে রাজ্যের শাসক দল। সম্প্রতি বিভিন্ন পুজো হওয়া ক্লাবগুলিতেও গেরুয়া শিবিরের দাপট বাড়তে পারে বলে জল্পনা ছড়ায়। তৃণমূল নেত্রী তথা

এবার তৃণমূলের এই হেভিওয়েট নেতা কি যাচ্ছেন বিজেপিতে, জল্পনা বাড়তেই আটকাতে আসরে মন্ত্রী

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের খারাপ ফলাফল হওয়ার পরই দলের একাংশ বিদ্রোহ ঘোষণা করতে থাকে। দুর্নীতি, স্বজনপোষনের জন্যই এবারে দলের এই ভরাডুবি বলে সোচ্চার হন অনেক পুরনো তৃণমূল কর্মীরা। পরিস্থিতি এমন জায়গায় যায় যে, দল যখন ক্ষমতায় আসেনি, সেই সময় দলের হাল ধরা অনেক নেতা বিজেপির মুকুল রায়ের হাত ধরে গেরুয়া শিবিরে

কাটমানির অভিযোগ নিয়ে জনগণকে নয়া নিদান দিলেন মন্ত্রী, জেনে নিন কি

লোকসভা ভোটে তৃনমূলের বিপর্যয়ের পরই দলকে শৃংখলায় বাধতে কাটমানি নিয়ে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এরপরই দিকে দিকে তৃণমূলের দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের বাড়ি ঘেরাও করে টাকা ফেরতের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন সাধারণ মানুষ। যাকে ঘিরে প্রবল অস্বস্তিতে পড়েছে শাসক দল। বিরোধীদের দাবি, আসলে তৃণমূলের উপরতলা থেকে নিচতলা পর্যন্ত

মন্ত্রীসভার বেতনবৃদ্ধি নিয়ে তোপ দেগে রাজ্যের বঞ্চিত সরকারি কর্মীদের ক্ষোভ বাড়ালেন এই বিধায়ক, জোর শোরগোল রাজ্যে

বিধায়ক ও মন্ত্রীদের বেতন বৃদ্ধির তীব্র প্রতিবাদ করলেন বাম দলনেতা সুজন চক্রবর্তী। গত সপ্তাহে বিধানসভায় মুখ‍্যমন্ত্রী ঘোষনা করেন যে মন্ত্রীদের দৈনিক ভাতা বাড়িয়ে করা হল ৩০০০ আর বিধায়কদের ২০০০।এইভাবে দৈনিক ভাতা বাড়ায় মুখ‍্যমন্ত্রী সহ অন‍্যান‍্য মন্ত্রী ও বিধায়কদের এক ধাক্কায় অনেকটাই বেড়ে গেল। যা চাঞ্চল‍্য ছড়িয়েছে রাজ‍্যের সাধারণ মানুষের মধ‍্যে। নতুন

মমতাকে ধাক্কা দিয়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন রাজ্যের মন্ত্রীর জামাই, জোর শোরগোল রাজ্যে

মমতাকে জোর ধাক্কা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ঘনিষ্ঠ খাদ্যমন্ত্রী তথা উত্তর 24 পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের জামাই ও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক অভ্র সেন মুকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দিলেন। জানা যাচ্ছে তাঁর সঙ্গে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন অধ্যাপক ও 20 জন পড়ুয়াও বিজেপিতে যোগ দেন। আজ ফের নেত্রী হুঁশিয়ারি

সকলে বিজেপিতে কেন চলে যাচ্ছে!মন্ত্রী নেতাকে ধমক দিয়ে আসরে হাজির খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

লোকসভা ভোটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 42 এ 42 এ শ্লোগান তুলেছিলেন। কিন্তু তার সেই স্লোগান পরিপূর্ণতা পায়নি। উল্টে মোটে 22 টি আসন দখল করেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে রাজ্যের শাসক দলকে। অপরদিকে বিজেপি নিজেদের দখলে 18 টি আসন নিয়ে তৃণমূলের ঘাড়ে নিশ্বাস ফেলতে শুরু করেছে। আর এহেন একটা পরিস্থিতিতে দলের সংগঠনের হাল ফেরাতে

পদ গেলো মন্ত্রীর, বদলে এলেন দিলীপ, জোর শোরগোল

লোকসভা ভোটের ফলাফল,দল ভাঙা, কাটমানি কান্ড নিয়ে যখন উত্তাল তৃণমূলের অন্দরমহল তখনই জল্পনা বাড়িয়ে পদ হারালেন তৃণমূলের হেভিওয়েট জেলা সভাপতি ও মন্ত্রী তপন দাসগুপ্ত। জানা যাচ্ছে হুগলি জেলা তৃণমূলের সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল তপন দাশগুপ্তকে আর তার জায়গায় এলেন দিলীপ যাদব। এছাড়া বেচারাম মান্না এবং মানস মজুমদার, প্রবীর ঘোষাল

Top
error: Content is protected !!