এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > হাওড়া-হুগলি

100 দিনের কাজে কোটি কোটি টাকা নয়ছয়ের অভিযোগ, টাকা ফেরতের নির্দেশ কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবি হওয়ার পরই সরকারি প্রকল্পে নেতাদের একাংশের কাঠমানি খাওয়ার জন্যেই অনেক জায়গায় দলের ফলাফল খারাপ হয়েছে বলে শাসকদলের ফলাফল পর্যালোচনা বৈঠকে সেই কারণ উঠে এসেছে। যার জেরে স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকলকে এই ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছেন। এমনকি কেউ যদি দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত হন, তাহলে

বসিরহাট কাণ্ডে তৃণমূল নেতার গ্রেপ্তারি চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট করে গ্রেপ্তার শিক্ষক

মাত্র কিছুদিন আগেই বসিরহাটে রাজনৈতিক হানাহানিতে উত্তাল হয়ে উঠেছিল রাজ্য-রাজনীতি। বিরোধীদের অভিযোগ ছিল, সেখানকার বিজেপি কর্মীদের নৃশংসভাবে চোখে বা মাথায় গুলি করে হত্যা করেছে শাসকদল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। আর এই ঘটনার পিছনে মূল মস্তিস্ক হল, স্থানীয় তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহান। তাঁর গ্রেপ্তারির দাবিতে সরব হয়ে ওঠেন প্রথম সারির বিরোধী নেতারা। বিজেপি

লোকসভা ভোটে ভরাডুবির পরে দলের সংশোধন আনতে নয়া পদক্ষেপ নিলেন বিধায়ক

লোকসভা ভোটে দলের ভরাডুবির পর সাধারণ মানুষের সমস্ত অভাব অভিযোগ শুনতে একটি অভিযোগ বক্স বসানোর উদ্যোগ নিয়েছিলেন চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার। নিজের দলীয় কার্যালয়ে সেই বাক্স বসিয়ে সাধারণ মানুষের কাছ থেকেও প্রচুর অভিযোগ পাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু এবার সেই চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদারের পথকে বেছে নিয়ে শাসক দলকে পাল্টা

তারকেশ্বর ডেভেলপমেন্ট অথরিটির চেয়ারম্যান পদ থেকে সরলেন ফিরহাদ, কাকে দায়িত্ব দিল দল, জেনে নিন

তাঁকে তারকেশ্বর ডেভেলপমেন্ট অথরিটির চেয়ারম্যান পদে বসানোর সময় সমালোচক মহলের একাংশ নানা বিতর্কের সৃষ্টি করেছিল। সংখ্যালঘু মুখ হিসেবে পরিচিত ফিরহাদ হাকিমকে কেন একটি হিন্দু মন্দিরের উন্নয়নের ক্ষেত্রে গঠিত এই অথরিটি বোর্ডের চেয়ারম্যান করা হবে তা নিয়ে বিভিন্ন মহলের তরফ সেই বিতর্ককে আরও উসকে দেওয়া হয়েছিল। তবে এইসবের কোনো কিছুতেই কান না

“ড্যামেজ কন্ট্রোল” করতে মাঠে নেমে পড়লেন বিধায়ক, দলের নেতাদের বিরুদ্ধে তোলাবাজি রুখতে নয়া পদক্ষেপ

এবারের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানের পরই শাসকদলের ফলাফল পর্যালোচনার বৈঠকে দলীয় নেতাদের একাংশের দুর্নীতি এবং সাধারণ মানুষের প্রতি দুর্ব্যবহারই প্রধান কারণ হিসেবে উঠে এসেছে। আর তারপরই স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতাদের যাতে সামনে এনে দলকে সুসংহত ভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, তার বার্তা দেন স্বয়ং দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যার

ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস অব্যাহত, তৃণমূল কর্মী খুন হুগলির খানাকুলে

গতকাল রাতে হুগলির খানাকুল দুই নম্বর গ্রামপঞ্চায়েতে খুন হন এক তৃণমূল কর্মী | তৃণমূলের পার্টি অফিসের কাছ থেকে পাওয়া যায় নিহত ব্যক্তির মৃতদেহ |এই ঘটনায় শুরু হয়েছে তৃণমূল বিজেপির চাপান উতোর। ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ |মৃত ব্যক্তির স্ত্রীর বক্তব্য অনুযায়ী নিহত ব্যক্তির মাথায় ও বুকে লোহার রড দিয়ে আঘাত

বিধানসভায় ঘুরে দাঁড়াতে হুগলি নিয়ে বিশেষ পরিকল্পনা ফিরহাদের, “কাটমানি” নিয়ে উত্তাল গোটা জেলাই

লোকসভা ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর তৃণমূলের ভরাডুবি এবং বিজেপির প্রবল উত্থানে কিভাবে ঘুরে দাঁড়ানো যাবে তা নিয়ে বিশ্লেষণ শুরু করেছে তৃণমূল। ইতিমধ্যেই তৃণমূল ভবনে জেলাওয়ারি বৈঠক শুরু করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিছুদিন আগেই হুগলি জেলাকে নিয়ে বৈঠক করে দলকে ঘুরে দাঁড় করানোর জন্য কড়া নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আর এবার বিধানসভা

ছাড় নেই টোটো-অটোচালকদেরও! লাইসেন্স থাকলেও লক্ষ-লক্ষ টাকার তোলাবাজি স্থানীয় দাদাদের!

এবারের লোকসভা ভোটে তৃনমূলের খারাপ ফলাফল হওয়ার পেছনে নিচুতলার কর্মীদের দুর্নীতি এবং তোলাবাজিকেই দায়ী করেছেন একাংশ। আর যা নিয়ে সেই নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের পরই সমস্যা মেটাতে তৎপর হয়েছে রাজ্যের শাসক দল। তবে বৈধ অনুমতি পত্র থাকলেও টোটো এবং অটো চালানোর জন্য স্থানীয় দাদাদের ৫০ হাজার থেকে দেড় লক্ষ টাকা দিতে

মুকুল রায়কে মিথ্যাবাদী বলে আক্রমণ, তারকেশ্বরের গ্রামপঞ্চায়েত নিয়ে মুকুলের দাবিকে নস্যাৎ করলেন অভিষেক

লোকসভা ভোট শুরু হওয়ার আগে থেকেই একটু একটু করে তিনি তৃণমূলকে ভাঙতে লেগেছেন, একে একে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন অনুপম হাজরা, সৌমিত্র খাঁ, অর্জুন সিং, শঙ্কুদেব পান্ডা, ভারতী ঘোষ প্রমুখ। আর লোকসভা ভোট মেটার পর তৃণমূলকে ভাঙছেন জলের তোরের মতো। একে একে বহু বিধায়ক, নেতা কর্মী কাউন্সিলর তাঁর হাত ধরে

ভুল ছিল, তাই মানুষ “শিক্ষা” দিয়েছে – ভরা জনসভায় মেনে নিলেন হেভিওয়েট তৃণমূল বিধায়ক

এবারের লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 42 এ 42 টি আসন দখল করার স্লোগান দিয়েছিলেন। কিন্তু তার সেই স্লোগান স্বপ্ন হিসেবেই থেকে গেছে। উল্টে গত 2014 সালে তৃণমূল 34 টা আসন পেলেও এবার তা থেকে কমে তাদের আসন সংখ্যা দাঁড়িয়েছে 22 টিতে। অপরদিকে বিজেপি নিজেদের ঝুলিতে 18 টি আসন নিয়ে এসেছে। আর

Top
error: Content is protected !!