এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা

শান্তিবাহিনীর নামে মুকুল ঘনিষ্ঠকে তৃণমূলের ‘বখাটে’ ছেলেদের আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বেধড়ক মার

লোকসভা নির্বাচনের আগে ও নির্বাচনের প্রচারে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গর্বের সঙ্গে নাকি জানিয়েছিলেন - বাংলায় কোথাও নাকি বিজেপি নেই! অন্যদিকে বিজেপির দাবি ছিল বাংলা থেকে এবারে তারা অন্তত ২৩ টি লোকসভা আসন জিতবে। একইসঙ্গে বিজেপির দাবি ছিল - উনিশে হাফ আর একুশে সাফ! কিন্তু বিজেপির দাবিকে ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়ে

রবীন্দ্রনাথের পরে ডানা ছাঁটা হল এই হেভিওয়েট তৃণমূল নেতার, জোর জল্পনা রাজ্যে

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলার 42 টি লোকসভা আসনের মধ্যে 42 টি লোকসভা কেন্দ্রই দখল করার ডাক দিয়েছিলেন। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে নেত্রীর এই শ্লোগান বাস্তবে রূপায়িত করতে পারেননি রাজ্যের সিংহভাগ জেলার তৃণমূল নেতারাই। আর তাইতো গত 2014 সালে তৃণমূল বাংলা থেকে 34 টা আসন পেলেও এবার তাদের ভাগ্যে জোটে

ভাটপাড়ায় হিংসা প্রসঙ্গে মমতাকে মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন বলে দাবি কৈলাসের

মাঝে কিছুদিন এলাকা শান্ত থাকলেও গতকাল থানা উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের সৃষ্টি হয় ভাটপাড়া এলাকায়। বোমা এবং গুলির লড়াইয়ে মৃত্যু হয় দুই ব্যক্তির। আর এরপরই এই গোটা ঘটনায় একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলতে শুরু করেন। তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, চক্রান্ত করে অশান্তি সৃষ্টি করা হচ্ছে। পাশাপাশি শান্তি স্থাপনে তড়িঘড়ি

ভাটপাড়ার হিংসার জন্য কে দায়ী সেই নিয়ে জোর চাপানউতোর রাজ্যের মন্ত্রী ও মুকুলের

লোকসভা ভোটের পরই নানা সময় উত্তপ্ত হতে দেখা গেছে একদা তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি বলে পরিচিত ভাটপাড়াকে। যে ঘটনায় শাসকদলের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলে সরব হয়েছিলেন বর্তমান বিজেপি নেতা তথা ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ। কিন্তু তারপর বেশ কিছুদিন সেই ভাটপাড়ায় শান্তি বজায় ছিল। তবে এবার ফের গতকাল সেই

রণক্ষেত্র ভাটপাড়া, সংসদীয় দল পাঠাচ্ছে বিজেপি

লোকসভা নির্বাচনে ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক তথা বিজেপি নেতা অর্জুন সিংহ জয়লাভ করার পরই সেই কেন্দ্রটি তৃণমূলের হাতছাড়া হয়। আর এরপরই বিভিন্ন সময়ে রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হতে দেখা যায় ভাটপাড়াকে। মাঝে কিছুদিন বোমা, গুলির আওয়াজ বন্ধ ছিল। রাতে বেশ শান্তি মতই ঘুমোচ্ছিলেন এখানকার মানুষেরা। কিন্তু এবার ফের সেই ভাটপাড়া

সি আই ডির জালে ধরা পড়ল ভাটপাড়া বোমাবাজি কাণ্ডে অভিযুক্তবিজেপি কাউন্সিলর

সি আই ডির জালে ধরা পড়ল ভাটপাড়া বোমাবাজি কাণ্ডের আরো দুই অভিযুক্ত। জানা যাচ্ছে গ্রেপ্তার হওয়া দুজনের মধ‍্যে একজন বিজেপি কাউন্সিলরও রয়েছেন।সিআইডি সূত্রের খবর এখনো পর্যন্ত এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মোট ৫জন গ্রেপ্তার হয়েছে। ১১ জুন ভাটপাড়ায় বোমার আঘাতে মৃত্যু হয় দুই তৃণমূল কর্মীর। দুষ্কৃতীদের ছোড়া বোমায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মহম্মদ

বনগাঁ উত্তরের তৃণমূল বিধায়ক বিজেপিতে, প্রতিবাদে প্ল্যাকার্ড হাতে ধিক্কার মিছিল বিজেপি কর্মীদের

লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবির পরই একের পর এক জনপ্রতিনিধি বিজেপিতে যোগ দিতে শুরু করেন। তৃণমূল কাউন্সিলর, বিধায়ক, নেতারা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখালে তীব্র অস্বস্তিতে পড়ে ঘাসফুল শিবির। গত মঙ্গলবার বিকেলে দিল্লিতে গিয়ে বনগাঁ উত্তরের বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস এবং বনগাঁ পৌরসভা কাউন্সিলর পদ্ম শিবিরে নাম লেখান। কিন্তু বিশ্বজিৎবাবু এবং তৃণমূলের কাউন্সিলররা

মুকুল-অরূপের হাত ধরে দলবদল, সামঞ্জস্য এল তৃণমূল-বিজেপিতে

লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর থেকেই রাজ্যের শাসক দলের অন্দরে ভাঙ্গন ধরতে শুরু করে। একের পর এক কাউন্সিলর, বিধায়ক, নেতারা ঘাসফুল ছেড়ে পদ্মফুলে নাম লেখান। যার জেরে বিভিন্ন পৌরসভায় লাগে গেরুয়া রঙের ছোঁয়া। অন্যদিকে একের পর এক জনপ্রতিনিধি তাদের দল ছেড়ে বিরোধী দল বিজেপিতে নাম লেখানোয় হতাশ হয়ে পড়ে তৃণমূল। সম্প্রতি

আলোরানীর হাত ধরে বড়সড় ভাঙ্গন মুকুল গড়ে, বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ প্রায় দেড় হাজার কর্মী সমর্থকের

তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে চলে যাবার পর মুকুল রায় তৃণমূলকে ভাঙার দাবি তুলেছিলেন। লোকসভা ভোটের আগে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন বড় বড় নেতা নেত্রীরা, যার মধ্যে রয়েছেন অর্জুন সিংও।এদিকে লোকসভা ভোটে বিজেপি ভালো ফল করতেই তৃণমূল ভাঙতে শুরু করেছে ঝড়ের মতো। মুকুল পুত্রও এখন বিজেপিতে। ফলে উত্তর উত্তর ২৪ পরগনায়

অর্জুন সিং এর উপর ক্ষোভ, দল ছেড়ে তৃণমূলে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা

কিছুটা হলেও উলটপুরাণ। অর্জুন সিং দল ছাড়ার পরেই তাঁর হাত ধরে কে একে কোকিলর, নেতা কর্মীরা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। কিন্তু এদিন উল্টো চিত্র দেখা গেসিলো। জানা যাচ্ছে এদিন বিজেপির সাংসদ অর্জুন সিংহের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ ও স্বজনপোষণের অভিযোগ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা। এদিন বারাসাত রবীন্দ্র ভবনে

Top
error: Content is protected !!